এক অদ্ভুত সাইন্স ফিকশন মুভি

সাইন্স ফিকশন মুভি গুলো যে একটু অদ্ভুত হয় এটা কমবেশি মুভি দেখা সকল লোকই জানি, কিন্তু এই মুভিটি এতই অদ্ভূত যে যেই এবং যারা মুভিটি তৈরী করেছে তারা নিজেরাই কখনও হলে বা টেলিভিশনে তাদের মুভিটি দেখতে পাবে না। এই অদ্ভুত সাইন্স ফিকশন মুভিটি সম্পর্কে বিস্তারিত>

অদ্ভুত সাইন্স ফিকশন মুভিটির নাম The movie you will never see যার বাংলা (যে সিনেমাটি আপনি কখনই দেখতে পাবেন না)। এই নামটি দেওয়ার কারণ মুভিটি ২০১৫ সালে কমপ্লিট হলে ও এইটার রিলিজ ডেইট বা প্রকাশের জন্য দিন সিডিউল করা হয় ২১১৫ সালে। অর্থাৎ মুভিটি কমপ্লিট হওয়ার ১০০ বছর পর মুভিটির রিলিজ ডেইট দেওয়া হয়েছে। এই একটি মাত্র কারণের মুভিটি এতো বেশি সমালোচিত

মুভিটি ১০০ বছর পর রিলিজের পিছে একটি সংস্থা- “লুইস থার্টিন কগন্যাক” এর মূল ভাবনা রয়েছে বলে ধারণা করা হয়। “লুইস থার্টিন কগন্যাক” মূলত পৃথিবীর অন্যতম বিখ্যাত মদ তৈরীর কোম্পানি। এই ব্র্যান্ডি জাতীয় পানীয়টি তৈরীর একটা বিশেষত্ব রয়েছে। প্রায় ১০০ বছর ধরে জমিয়ে রাখার পর “লুইস থার্টিন কগন্যাক” এর একটা প্রোডাক্ট বাজেরে আনা হয়। এই ভাবনাকেই সিনেমায় নিয়ে এসেছে রাইটার। এটা মুভিটির ট্রিজারে ও দেখানো হয়েছে।

মুভিটির রাইটার হলেন John Malkovich, যিনি একজন পেশাগত অভিনেতা। আর এই অদ্ভুত মুভির ডিরেক্টর হলেন Robert Rodriguez

মুভিটি যেমন স্পেশাল মুভিটির রেকডিং টাও বেশ স্পেশাল ভাবেই রাখা হয়েছে, মুভিটির রেকডিংটি একটা হাই ফাই বুলেট ফ্রুপ বাক্সের মধ্যে রাখা হয়েছে। আর আচার্যের কথা হল যতদিন না এই মুভিটির ১০০ বছর শেষ হবে এর আগে চাইলেও কেউ এই বক্সটি খুলতে পারবে না, এমন কি মুভির সাথে জরীত কোন লোক ও না। ২১১৫ সালের নভেম্বরে যেইদিনে মুভিটির ১০০ বছর পূরণ হবে সেই দিন বাক্সটি আপনা আপনিই খুলে যাবে। 

মুভিটি সম্পর্কে জেনে কেমন লাগল? কেমেন্টে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *