One Minute Learn

মহাকাশের কলম আবিষ্কারের পিছনের ইতিহাস

আমরা সবাই 3 idiots মুভির কথা জানি!

মুভির প্রথমে প্রিন্সিপাল যখন ওনার হাতের স্পেস পেন দেখিয়ে বলেন এটা স্পেসে ব্যবহারের জন্য এস্ট্রনোট পেন। কয়েক লাখ ডলারের পেন। তখন আমির খান প্রশ্ন করে, নাসা কেন পেন্সিল ব্যবহার করেনি? তাহলে লাখো ডলার বেঁচে যেত

আসলে ফিশার স্পেস পেন আবিষ্কার এর পূর্বে পেন্সিলই ব্যবহার করত নাসা এবং সোভিয়েত স্পেস এজেন্সিরা ৷

কিন্তু মহাকাশে পেন্সিল ব্যবহার করা খুব বিপজ্জনক ৷

কারন পেন্সিলে থাকা গ্রাফাইটের গুড়ো খুব ভালো মানের তাপ ও বিদ্যুতের পরিবাহক।যার একটি ছোটো টুকরোও_ 

জিরো গ্রাভিটির কারনে মহাকাশচারীদের নাকে, কানে ঢুকে যাওয়ার ভয় থাকে।

 এবং ইলেকট্রিক্যাল যন্ত্রপাতির মধ্যে ঢুকে,শর্ট সার্কিট হয়ে পুরো ক্যাপসুলের মধ্যে আগুন ধরে যেতে পারে। 

তাছাড়া মহাকাশে সাধারণ পেনের সাহায্যে লেখা যায় না কারণ সেখানে জিরো বা মাইক্রো গ্রাভিটি তে সাধারণ পেন কাজ করে না ৷ তাই মহাকাশে লেখা যায় এমন পেনের দরকার হয় স্পেস এজেন্সিদের ৷ পরে নাসা এবং ফিশার কোম্পানি মিলে ‘ফিশার স্পেস পেন’ আবিষ্কার করেন। 

‘জিরো গ্র্যাভিটি পেন’ নামে পরিচিত এ কলমে ব্যবহার করা হয়েছে নাইট্রোজেন গ্যাস যুক্ত প্রেশারাইজড্‌ ইঙ্ক কার্ট্রিজ।

 জলের নীচে, মহাশূন্যে, ভেজা ও তৈলাক্ত কাগজের উপর, যে কোনো কিছুতে, উপরে নীচে যেমন ভাবে খুশি এর সাহায্যে লেখা সম্ভব। 

এ কলমটি আবিষ্কার করেন আমেরিকার (পল সি ফিশার) ৷বর্তমানে আমেরিকা এবং রাশিয়া দুই দেশই এটা ব্যবহার করছে।

 আর বিশ্বের সবছেয়ে দামি জিনিস সম্পরকে বিস্তারিত জানতে এই ভিদেওতি দেখে আসুন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

Related Posts

SHARE THIS

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on pinterest
Pinterest
Share on skype
Skype
Share on whatsapp
WhatsApp

POPULAR POST